বিশিষ্ট সমাজসেবক চয়ন বোসের স্মৃতি চারণে আয়োজিত স্মরণসভা সম্পন্ন হল

23

নিউজসুপার, তানিয়াকুন্ডু:মানুষ যখন ইহলোক ত্যাগ করে পরলোকে গমন করেন,তখন রয়ে যায় সেই মানুষটির স্মৃতি।সেই স্মৃতি বয়ে চলে অনবরত ক্রমানুসারে।
সেইরকমই এক সমাজপ্রেমিক মানুষ চয়ন বোস।যার স্মৃতি এখনো মানুষের মধ্যে দাগ কেটে রয়েছে।যার ভালো কর্মের সুনাম এখনো সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে আপামর মানুষ মনে রেখেছেন।
তখন কংগ্রেস অবিভক্ত একনিষ্ঠ দল ছিল সেই দলের অন্যতম কান্ডারী ছিলেন বীজপুরের মৃনাল সিংহরায়।মৃনাল সিংহরায়ের পরেই যেই নামটি উঠে আসে তিনি হলেন চয়ন বোস।
যখন চয়ন বাবু জীবিত ছিলেন সাধারণ মানুষের দুঃখ বেদনা তিনি যেন দেখতেই পারতেন না।৩৬০০প্যানেলের রেলে চাকরির অধিকৃতে বহু বেকার যুবকদের চাকরি পাইয়ে দেওয়ার চয়ন বোসের অনবদ্য ভূমিকা ছিল যা এখনো লোকমুখে প্রচলিত।
শুধু চাকরি নয়,গরীব দুঃখীদের বস্ত্র দান,কম্বল বিতরণ,রক্তদান উৎসবও করতেন।এছাড়াও তিনি নিজে গানবাজনা ভালোবাসতেন দেখে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও পালন করতেন।
অপরদিকে ছিলেন তেমনই তেজস্বী ও প্রতিবাদী পরায়ণ, সিপিএমের বিরুদ্ধেও লড়াই চালিয়েছিলেন।চয়ন বোসের সম্পর্কে যতই স্মৃতিচারণ করা যায়, ততই কম হবে।
১৯৯৬ সাল ৯ই এপ্রিল গাড়ি দুর্ঘটনায় অকালে প্রয়ান ঘটল এই বিশিষ্ট ব্যাক্তির।
তাঁরই স্মৃতির উদ্দেশ্যে হালিশহর যে চয়ন স্মৃতি ভবন নির্মিত হয়েছে সেখানে প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও স্মরণ সভা সম্পন্ন হল।
উক্ত সভায় চয়ন বোসের পটচিত্রে ফুল মাল্য অর্ঘ্য নিবেদন করলেন হালিশহর পৌরসভার পৌরপ্রধান মাননীয় অংশুমান রায়,হালিশহর যুব নেতা শুভঙ্কর ঘোষ (সোনাই),প্রবীর সরকার,চন্দ্রোদ্বয় চক্রবর্তী এছাড়াও হালিশহর চয়ন স্মৃতি ভবনের সকল সদস্য বৃন্দ ও চয়ন বোসের শুভাকাঙ্খী ও কাছের মানুষেরা।
নিউজসুপারের পক্ষ থেকেও তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় পরম ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা রইল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

11 − eight =