জনসমক্ষে আমার শরীরে হাত দেওয়া হয়, মুখ খুললেন কঙ্গনা

29

#MeToo নিয়ে সোচ্চার বলিউড। কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতও। সম্প্রতি, ‘কুইন ‘ পরিচালক বিকাশ বহেলের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন কঙ্গনা। সোজা-সাপটা কঙ্গনার বক্তব্য, যৌন হেনস্থা নিয়ে বি-টাউনের সেলেবরা মুখ খোলায় এখন অনেকেই কোনওরকম ব্যবহার করার আগে দুবার ভাবছেন। এতদিন অনেকেই এই ৫-৬ জনের নাম জানত, তবে তাঁরা এদের বিরুদ্ধে কিছুই করেননি। এখন সকলে মুখ খুলছেন। যদিও এটাই যথেষ্ঠ নয়।

রানি মুখোপাধ্যায় সম্প্রতি বলেছিলেন প্রত্যেক মেয়েদেরই জানা উচিত কীভাবে নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে হয়। সেইভাবে নিজেই তৈরিু করা উচিত। মহিলাদের প্রয়োজনে মার্শাল আর্টও শেখা উচিত। কঙ্গনা রানির সেই বক্তব্য়ের সমর্থনেই মুখ খুলেছেন। তিনি বলেন, প্রত্যেককে নিজের সুরক্ষা নিজেই সুনিশ্চিত করতে হবে। অন্য কেউ করে দেবে না। কঙ্গনা বলেন, খুব খারাপ লাগে এটা ভাবলে যে রানিকে তাঁর এধরনের কথার জন্য ট্রোল হতে হয়েছিল। কঙ্গনা বলেন, রানি হয়ত তাঁর নিজের বক্তব্যকে ঠিকভাবে বোঝাতে পারেননি। তবে রানি তাঁর নিজের জীবনকে যেভাবে পরিচালনা করেছেন তাতে তিনি নারী ক্ষমতায়নের অন্যতম দৃষ্টান্ত।

প্রসঙ্গত, রানি মুখোপাধ্যায় একটি টক শোয়ে গিয়ে নারী সুরক্ষা প্রসঙ্গে মুখ খুলেছিলেন, যেখানে দীপিকা, আলিয়া, অনুষ্কা, তাব্বু সহ আরও অনেকেই ছিলেন। রানি বলেন, ”মেয়েদের আগে নিজের উপর বিশ্বাস রাখতে হবে। তা নাহলে কোনও কিছুই সম্ভব নয়। তাঁরা কী চাইছেন, কী চাইছেন না, সেটা যেন স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিতে পারেন ” রানির কথার বিরোধীতা করে সেসময় দীপিকা বলেন, প্রত্যেক মহিলা এভাবে তৈরি নয়। পাল্টা উত্তরে রানি বলেন, ”যাঁরা তৈরি নয়, তাঁদেরকেও বোঝাতে হবে। বলতে হবে পরিবর্তিত হতে। ”

জনসমক্ষে যৌন হেনস্থা প্রসঙ্গে এদিন কঙ্গনা বলেন, ”একবার এক ব্যক্তি জনসমক্ষে আমার নিতম্বে চিমটি কেটেছিল। আমার দিকে তাকিয়ে ছিল। তবে বিষয়টাযে খুব বেশি যৌনতা ছিল তা নয়। ওই ব্য়ক্তি যেন বলতে চাইছিল ‘আমি সেটাই করেছি যেটা করা উচিত’ ” এধরনের ঘটনাকে ঠিক কী বলবেন? এভাবেই প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন কঙ্গনা। আমার মনে হয় প্রত্যেক মেয়ের জানা উচিত যে তাঁদের মধ্যে কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম, সীমাবদ্ধতা তৈরি করা উচিত। যেমন কোনওক্ষেত্রে মেয়েরা যদি ‘না’ বলে তাহলে সেটা ‘না’ই হবে। তবে নিরাপত্তা মানে শুধু ক্যারাটে কুম্ফু নয়, নিরাপত্তা মানে তুমি যাঁর সঙ্গে যাচ্ছ, যেন সে তোমায় নিরাপত্তা দিতে পারে। এটা তোমার বাড়ির কাকা, জ্যাঠা,বন্ধু, কিংবা মুম্বই পুলিস কিংবা সংবাদমাধ্যম যার সঙ্গেই তুমি যেখানে যাও না কেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × four =