গোপীনাথ মুন্ডের মৃত্যুতে RAW বা সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিকে দিয়ে তদন্ত দাবি ভাইপোর

48

কাকা গোপীনাথ মুন্ডের মৃত্যুর তদন্তের দাবি করলেন ভাইপো ধনঞ্জয় মুন্ডে। সোমবার প্রাবাসী এক সাইবার বিশেষজ্ঞ দাবি করেন, ২০১৪-র নির্বাচনে ইভিএম হ্যাক করে জিতেছিল মোদীর বিজেপি। সেকথা জেনে ফেলাতেই পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছিল তত্কালীন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডেকে।

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের এক সপ্তাহের মধ্যে নয়া দিল্লিতে এক পথদুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় গোপীনাথ মুন্ডের। কাকভোরে ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দরে বিমান ধরতে যাচ্ছিলেন তিনি। তখনই নয়া দিল্লির রাজপথে তাঁর গাড়িতে দ্রুতগতিতে ধাক্কা মারে একটি ট্রাক। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তত্কালীন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডের।

ওই ঘটনার ‘র’ বা সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিকে দিয়ে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন ধনঞ্জয় মুন্ডে। রাষ্ট্রীয় কংগ্রেস পার্টি নামে একটি দলের সর্বেসর্বা ধনঞ্জয় বলেন, ‘গোপীনাথ মুন্ডেকে খুন করা হয়েছে বলে এক সাইবার বিশেষজ্ঞ দাবি করেছেন। আমার দাবি, ওই ঘটনার র অথবা সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিকে দিয়ে তদন্ত করানো উচিত। কারণ, তিনি জনপ্রতিনিধি ছিলেন।’

সোমবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে লন্ডনে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিক বৈঠক করেন সৈয়দ শুজা নামে এক স্বঘোষিত প্রযুক্তিবিদ। সেখানে একের পর এক চাঞ্চল্যকর দাবি করেন তিনি। বলেন, ‘২০১৪ সালের নির্বাচনে ভোটযন্ত্র হ্যাক করে জিতেছে বিজেপি। সেখবর জেনে ফেলাতেই খুন করা হয় বিজেপি নেতা গোপীনাথ মুন্ডেকে। মন্ত্রিত্বের শপথ নেওয়ার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই দিল্লির রাস্তায় দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল তাঁর।’

শুজার আরও দাবি, মুন্ডের মৃত্যুর তদন্ত করছিলেন এনআইএ আধিকারিক তঞ্জিল আহমেদ। ওই ঘটনায় হত্যার মামলা দায়ের করতে যাচ্ছিলেন তিনি। তার আগে তাঁকেও খুন করা হয়।

সোমবার লন্ডনে ওই সাংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন কংগ্রেস নেতা কপিল সিবাল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 + two =