আপনিও কি এই ভাবে জল খান? সর্বনাশ, হতে পারে মারাত্মক বিপদ!

19

কথায় বলে, ‘জলই জীবন’। আমাদের বেঁচে থাকার ক্ষেত্রে একটি অপরিহার্য উপাদান হল জল। জল খাওয়ার ফলে শুধু আমাদের তেষ্টাই মেটে না, সেই সঙ্গে শরীরে জলের মাত্রা বা ভারসাম্যও বজায় থাকে। কিন্তু কী ভাবে জল খান আপনি? জানেন কি সঠিক পদ্ধতিতে জল না খেলে মারাত্মক বিপদ হবে পারে! যেমন, অনেক সময় তাড়াহুড়োয় আমরা অনেকেই দাঁড়িয়ে জল খাই। আর এতেই হতে পারে বিপদ! ভাবছেন, তাহলে রাস্তা-ঘাটে তেষ্টা পেলে কী করবেন? তখন তো দাঁড়িয়েই জল খেতে হবে! উপায় আছে… তবে তার আগে জেনে নেওয়া যাক দাঁড়িয়ে জল খাওয়ার বিপদটা কোথায়!

দাঁড়িয়ে জল খাওয়ার বিপদ:

১) উদ্বেগ বাড়ে: দাঁড়িয়ে জল খেলে আমাদের স্নায়ু উত্তেজিত হয়ে পড়ে। বেড়ে যায় রক্তচাপ। ফলে এ ভাবে জল খেলে উদ্বেগ বাড়তে থাকে।

২) শরীরে টক্সিনের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়: দাঁড়িয়ে জল খেলে শরীরের ভিতরে থাকা ছাকনিগুলি সংকুচিত হয়ে যায়। ফলে শরীর পরিশ্রুত করার কাজ বিঘ্নিত হয়। আর শরীরে টক্সিনের মাত্রা বাড়তে থাকে।

৩) কিডনি ক্ষতিগ্রস্থ হয়: দাঁড়িয়ে জল খেলে কিডনির কর্মক্ষমতা কমে। ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত বা বিকল হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৪) হৃদযন্ত্রে চাপ পড়ে: দাঁড়িয়ে জল খেলে আমাদের বুকের পেশিতে চাপ পড়ে। ফলে আমাদের হৃদযন্ত্রের উপরেও চাপ সৃষ্টি হয় যা মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে।

৫) পাকস্থলীতে কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয়: দাঁড়িয়ে জল খেলে তা সরাসরি পাকস্থলীতে গিয়ে আঘাত করে। পাকস্থলী থেকে নিঃসৃত পাচক রসের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ফলে হজমের নানা সমস্যা তৈরি হয়। হতে পারে গ্যাস্ট্রো ইসোফেগাল রিফ্লাক্স ডিজিজ-এর মতো হজমের অসুখও।

জল খাওয়ার সঠিক নিয়ম:

১) বসে জল খান।

২) ছোট ছোট চুমুকে জল খান।

৩) ছোট ছোট চুমুকে মুখ নামিয়ে বা সামনের দিকে তাকিয়ে ঢোক গিলে জল খাওয়ার অভ্যাস করুন।

এই পদ্ধতি মেনে চলতে পারলে সহজেই সুস্থ, সতেজ থাকা সম্ভব। থাকবে না কোনও বিপদের ঝুঁকিও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 − 4 =